অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াতে ‘সহায় ফাউন্ডেশন’

share on:
সহায় ফাউন্ডেশন

‘ভালোবেসে হাত বাড়াই, বিপদে মোরা একে-অপরের সহায়’ স্লোগানকে সামনে নিয়ে যাত্রা শুরু হতে যাচ্ছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘সহায় ফাউন্ডেশন’র।

অসহায় মানুষের কষ্ট-যাতনা দূর করে দেওয়ার অদম্য স্বপ্ন নিয়ে সংগঠনটি শুরু করেছে কয়েকজন তরুণ। তরুণেরা হলেন – ড. মামুন হোসাইন ( এমবিবিএস, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ) , উলুল অন্তর ( লেখক ও শিক্ষার্থী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়) , মো: রায়হানুল ইসলাম ( শিক্ষার্থী, ঢাকা কলেজ), মল্লিক সজল ( শিক্ষার্থী, বগুড়া আজিজুল হক কলেজ) ও মো: রাসেল মাহমুদ শুভ ( শিক্ষার্থী, ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ইউনিভার্সিটি ডাচ)। সংগঠনটি প্রতিষ্ঠার আগে তারা  – ইউনিসেফ, বৃত্ত পরিবার, বাঁধনসহ বিভিন্ন দেশী-বিদেশী স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনে ভলান্টিয়ার হিসেবে কাজ করে অভিজ্ঞতা অর্জন ও নিজেদের যোগ্য হিসেবে তৈরি করেছেন।

‘সহায় ফাউন্ডেশন’ স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনটি  প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্য হলো – দেশের দরিদ্র অসহায় মানুষকে স্বাবলম্বী করে তুলতে অর্থনৈতিক সহায়তা ও ট্রেনিং প্রদান, দরিদ্র মানুষের চিকিৎসা সেবা প্রদান করে সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা,  দেশের সুবিধাবঞ্চিত শিশুদেরকে মানসম্পন্ন শিক্ষা ব্যবস্থার সুযোগ সৃষ্টি করে দেওয়ার মাধ্যমে, দারিদ্র ও অশিক্ষা দূর করে বাংলাদেশকে একটি সমৃদ্ধশালী জাতিতে রূপান্তর, দরিদ্র, ভাসমান ও অপুষ্ট শিশুদের পুনর্বাসন  ও সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা, গরীব  মেধাবীদের বিভিন্ন ধরণের বৃত্তি প্রদান,  শারীরিক ও মানসিক প্রতিবন্ধীদের চিকিৎসা ও স্বাবলম্বী করে তুলতে ট্রেনিং দেওয়া প্রভৃতির মাধ্যমে দারিদ্রমুক্ত ও টেকসই বাংলাদেশ তৈরি করা।

বর্তমানে ফাউন্ডেশনের সদস্য সংগ্রহের কাজ চলছে। এবছর মার্চ মাসের শেষ থেকে মাঠপর্যায়ে কার্যক্রম শুরু করবে ‘সহায় ফাউন্ডেশন’।

আপনিও সংগঠনের একজন হতে পারেন- সদস্য হয়ে এবং অর্থনৈতিক ভাবে সহায়তা করে। অসহায় ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে টেকসই বাংলাদেশ গঠনে আপনিও হতে পারেন একজন অংশীদার।

সহায় ফাউন্ডেশনের ফেসবুক গ্রুপ : https://www.facebook.com/groups/481228162547899/

সদস্য হতে, সংগঠনকে সহায়তা করতে এবং বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করুন :

১. রায়হানুল ইসলাম, Mobile – +8801739895190, E-mail- raihanulislamstat@gmail.com.

২. মল্লিক সজল, Mobile – +8801740395295, E-mail- mamshazal@gmail.com.

আরও পড়ুন : ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা স্যার ফজলে হাসান আবেদের সাক্ষাৎকার

Facebook Comments