ফেব্রুয়ারিতে তিনদিনব্যাপী ‘বাংলাদেশ সাহিত্য উৎসব ২০২০’

share on:
বাংলাদেশ সাহিত্য উৎসব ২০২০

‘ভেদাভেদহীন শান্তির পৃথিবী চাই’ শিরোনামে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও মহান একুশের চেতনায় উদ্ভাসিত বাঙালি জাতিসত্তার মাস ফেব্রুয়ারির ২১, ২২ ও ২৩ তারিখে অনুষ্ঠিত হবে ‘বাংলাদেশ সাহিত্য উৎসব ২০২০’।

কবিতাপত্র ‘দিকচিহ্ন’-এর উদ্যোগে দেশি-বিদেশি কবি-সাহিত্যিকের অংশগ্রহণে পাবলিক লাইব্রেরি প্রাঙ্গণ, শাহবাগ, ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে উৎসবটি।

সাহিত্য উৎসবের আহ্বায়ক সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব কামাল লোহানী, যুগ্ম-আহ্বায়ক কবি মোহন রায়হান। উৎসব উদ্বোধন করবেন ইমেরিটাস অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী। উৎসবের ঘোষণাপত্র পাঠ করবেন সমাজতাত্ত্বিক অধ্যাপক সলিমুল্লাহ খান।

উৎসবে বাংলা ভাষার গতি প্রকৃতি, সমকালীন বাংলা কবিতার ধারা, কবিতা: ব্যক্তি ও সমষ্টির দ্বৈরথ, কথাসাহিত্যের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ, বাঙালির ইংরেজি চর্চ্চা ও অনুবাদ সংকট’, ’মাধ্যমের ভিন্নতা ও শিল্পের ঐক্য’ শিরোনামের ছয়টি পর্বে মূল প্রবন্ধ পাঠ ও আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। আলোচনায় অংশ নেবেন দেশ-বিদেশের শিল্পী-সাহিত্যিক, বোদ্ধা ও গুণীজন। থাকবে দেশি-বিদেশি কবিদের স্বরচিত কবিতাপাঠ, সম্মাননা প্রদান ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এছাড়াও দেশি-বিদেশি সাহিত্যিকদের রচনা নিয়ে দ্বিভাষিক সাহিত্য সংকলন ও স্মরণিকা প্রকাশিত হবে।

বিশ্বজুড়ে আজ নব নব দানব শক্তির উত্থান। তাদের আমূল আগ্রাসী তাণ্ডবে ধ্বংসের মুখে প্রাণ ও প্রকৃতি। চলছে অবাধ শোষণ, লুণ্ঠন আর উৎপীড়ন। ভূলণ্ঠিত মৌলিক অধিকার, রুদ্ধ মত প্রকাশের স্বাধীনতা। দুনিয়াব্যাপী জাতি-গোষ্ঠী- ধর্ম-বর্ণ ভেদাভেদের অসহায় শিকার মানুষ। এমনই সংঘাতের পৃথিবীতে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের অসাম্প্রদায়িক ও গণতান্ত্রিক চেতনাও আজ আক্রান্ত অশুভ অসুরের রোমশ থাবার হিংস্র নখরে। সকল অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে আমাদের এ উৎসব।

বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের ঐতিহ্য সংরক্ষণ, আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে বাংলা সাহিত্যের বিকাশ, বিশ্বের অন্যান্য ভাষার সাহিত্যিকদের সঙ্গে বাংলা ভাষার সাহিত্যিকদের মেলবন্ধন এবং সাহিত্যের সঙ্গে গণমানুষের সংযোগ ও সম্পর্ক চর্চাই এ উৎসব আয়োজনের অন্যতম উদ্দেশ্য। যার চূড়ান্ত লক্ষ্য মানুষের ব্যক্তি ও সামষ্টিক জীবনের ন্যায় ও সত্য প্রতিষ্ঠা।

‘বাংলাদেশ সাহিত্য উৎসব ২০২০’ এর যত আয়োজন : 

২১ ফেব্রুয়ারি

সকাল ১১ টা
কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, ঢাকা
পুষ্পার্ঘ অর্পণ

বিকাল ৪ টা
বাংলা একাডেমি, ঢাকা
একুশের বইমেলা পরিদর্শন

২২ ফেব্রুয়ারি

সকাল ১০ টা
পাবলিক লাইব্রেরি, শাহবাগ, ঢাকা
উৎসব উদ্বোধন:
জাতীয় পতাকা উত্তোলন
উৎসব পতাকা উত্তোলন
কপোতমুক্তি ও বেলুন উড়ানো
শওকত ওসমান মিলনায়তনে আসন গ্রহণ
একুশের গান
উৎসব সঙ্গীত
স্বাগত ভাষণ: মোহন রায়হান
ঘোষণাপত্র পাঠ: সলিমুল্লাহ খান
উদ্বোধনী ভাষণ: সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী
সন্মাননীয় অতিথির ভাষণ: সুবোধ সরকার
আহ্বায়কের ভাষণ: কামাল লোহানী
বিদেশি সাহিত্যিক বরণ

দুপুর ১২ টা
আলোচনা পর্ব-১
বিষয়: বাংলা ভাষার গতি প্রকৃতি
মূল প্রবন্ধ: সলিমুল্লাহ খান
সঞ্চালক: কুদরত-ই-হুদা
আলোচক: পবিত্র সরকার, মঈন চৌধুরী, চিত্রা লাহিড়ী, শিশির ভট্টাচার্য, মাহমুদ কামাল, সাদ উদ্দিন

দুপুর  ১. ৩০ টা
বিরতি

দুপুর ২. ৩০ টা
আলোচনা পর্ব-২
বিষয়: সমকালীন বাংলা কবিতার ধারা
মূল প্রবন্ধ: মোহাম্মদ আজম
সঞ্চালক: রেজাউদ্দিন স্টালিন
আলোচক: ফরিদ কবির, শ্রীজাত, শাখাওয়াত টিপু, চঞ্চল আশরাফ, জাহানারা পারভীন

বিকাল ৪: ০০ টা
আলোচনা পর্ব-৩
বিষয়: কথাসাহিত্যের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ
মূল প্রবন্ধ: জাকির তালুকদার
সঞ্চালক: রায়হান রাইন
আলোচক: সুমিতা চক্রবর্তী, শাহযাদ ফিরদাউস, আন্দালিব রাশদী, মশিউল আলম, ইমতিয়ার শামীম, মাহবুব মোর্শেদ

বিকাল ৫: ৩০ টা
স্বরচিত কবিতা পাঠ
উৎসর্গ: সৈয়দ শামসুল হক

সন্ধ্যা ৬: ৩০ টা
বিদেশি কবিদের স্বরচিত কবিতা পাঠ
উৎসর্গ: টনি মরিসন

সন্ধ্যা ৭: ৩০ টা
সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

সন্ধ্যা ৯:৩০ টা
উৎসবের দ্বিতীয় দিনের সমাপ্তি ঘোষণা

২৩ ফেব্রুয়ারি

সকাল ১০ টা
আলোচনা পর্ব-৪
বিষয়: কবিতা: ব্যক্তি ও সমষ্টির দ্বৈরথ
মূল প্রবন্ধ: অসীম সাহা
সঞ্চালক: মারুফ রায়হান
আলোচক: মতিন বৈরাগী, ফারুক মাহমুদ, জাহিদ হায়দার, মিনার মনসুর, গোলাম কিবরিয়া পিনু, মজিদ মাহমুদ

সকাল ১১: ৩০ টা
আলোচনা পর্ব-৫
বিষয়: বাঙালির ইংরেজি চর্চ্চা ও অনুবাদ সংকট
মূল প্রবন্ধ: সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম
সঞ্চালক: গৌরাঙ্গ মোহান্ত
আলোচক: সুবোধ সরকার, দীপক লাহিড়ী, নুরুল কবীর, জি এইচ হাবিব, আলীম আজিজ

দুপুর ১: ০০ টা
বিরতি

দুপুর ২: ০০ টা
আলোচনা পর্ব-৬
বিষয়: মাধ্যমের ভিন্নতা ও শিল্পের ঐক্য
মূল প্রবন্ধ: বিধান রিবেরু
সঞ্চালক: মোহাম্মদ রোমেল
আলোচক: বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত, বিভাস চক্রবর্তী, মোস্তফা সরয়ার ফারুকী, আবু সায়ীদ, ফ্লোরা সরকার

বিকাল ৩: ৩০ টা
স্বরচিত কবিতা পাঠ
উৎসর্গ: রফিক আজাদ

বিকাল ৪:৩০ টা
স্বরচিত কবিতা পাঠ
উৎসর্গ: বেলাল চৌধুরী

সন্ধ্যা ৫: ৩০ টা
বিদেশি কবিদের স্বরচিত কবিতা পাঠ
উৎসর্গ: পাবলো নেরুদা

সন্ধ্যা ৬: ৩০ টা
সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

সন্ধ্যা ৯: ০০ টা
উৎসবের সমাপ্তি ঘোষণা।

বিস্তারিত জানতে উৎসবের ফেসবুক পেইজ।

আরও পড়ুন : উইলিয়াম বাটলার ইয়েটস

Facebook Comments